চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আলিফ হোটেলের মালিক কাইয়ুম সওদাগর ইন্তেকাল করেছেন

সাজ্জাদ হোসেন

৭-৬-২০২১

This image is not found

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাহজালাল হলের সামনে অবস্থিত আলিফ হোটেলের মালিক মোহাম্মদ কাইয়ুম সওদাগর ইন্তেকাল করেছেন  (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

সোমবার (৭ জুন) সকাল ৮ টা ৩০ মিনিটে চবি ক্যাম্পাসে তার নিজ বাসায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন মোহাম্মদ কাইয়ুম সওদাগর।

আলিফ হোটেলের মালিকের এই মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিরাজ করছে শোক। শিক্ষার্থীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্মৃতি রোমন্থন করছেন।একজন ভালো মনের মানুষ হিসেবে তাকে সম্বোধন করে তার রুহের মাগফেরাত কামনা করছেন সবাই।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো: ফারুক তার ফেসবুক টাইম লাইনে লিখেন,   ' ক্ষমা চাওয়ার সুযোগটাও পেলামনা কাইয়ুম ভাই।অথচ অনেক হিসেব ছিলো জানা অজানা।ছোট ছোট ভাইগুলোর ভুল ।আল্লাহ কখন কাকে ডাক দেয়। ওপারে ভালো থাকবেন কাইয়ুম ভাই।অনেক জ্বালাইছি,সময়ে অসময়ে খুব দুঃসময়ে আপনার আস্তানায় ছিলো শেষ সম্বল।আমরা যারা শাহাজালাল হলের বাসিন্দা ছিলাম ঐসময়ে তারা জানি আপনি কেমন মানুষ ছিলেন।আল্লাহ আপনাকে জান্নাত নসীব করুন,আমিন।'

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক আইন সম্পাদক আবু সাঈদ মারজান বলেন,  ' আমরা দেখেছি চবি ক্যাম্পাসে যখন শুধুমাত্র একটা হল “শাহজালাল হল” ছাত্রলীগের ছিলো তখন থেকে সকল ছাত্রলীগের সকাল শুরু হতো কাইয়ুম ভাইয়ের হোটেলে নাস্তা করে। চবি ছাত্রলীগের দুংসময়ে সব সময় নিংস্বার্থ ভাবে সাহায্য করে গেছেন তিনি।চবি ছাত্রলীগ কাইয়ুম ভাইয়ের কাছে ঋনী। অনেক ঠান্ডা মেজাজের মানুষ ছিলেন তিনি। কখনো কোন ছাত্রের সাথে খারাপ ব্যাবহার করেন নি।তার রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। '

সকাল ১১ টা ৩০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে মরহুমের জানাজা শেষে  দাফনের উদ্যেশ্যে লাশ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তার পৈত্রিক নিবাস মাদারীপুর জেলার শিবচরে। 

মাদারীপুর জেলার শিবচর থানার বাঁশকান্দি  ইউনিয়নের মৃর্জারচর গ্রামের মৌলভি বাড়িতে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

এই বিভাগের আরও