শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ছে আরো, গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা

২৯-৭-২০২০

This image is not found
মারুফা,  স.বা.ক. প্রতিনিধি :

 


বৈশ্বিক মহামারী কোভিড_১৯ এর জন্য মার্চ মাস থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয় দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ইতিমধ্যে কবে খুলবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তা নিয়ে বিভিন্ন ধরনের মতভেদ ও গুজব ছড়ানোর খবর আমরা পেয়েছি। 


প্রায় চার মাসের ও বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে দেশের সকল স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও সরকারি-বেসরকারি সকল বিশ্ববিদ্যালয়। আপাতত ৬ ই আগস্ট পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করেছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এদিকে মহামারী
করোনার পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। 


পরিবেশ-পরিস্থিতি সুস্থ ও স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার কথা ভাবছে না বাংলাদেশ শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী ড. দীপু মনি বলেন, " করোনা  পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা উচিত হবে না। কারণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে অসংখ্য শিক্ষক এবং শিক্ষার্থী। যদি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এরমধ্যে খোলা হয় তবে প্রায় চার থেকে পাঁচ কোটি শিক্ষার্থী ও তাদের পরিবার সরাসরি আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে থাকবে। তাই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে সরকারকে আরো চিন্তাভাবনা করতে হবে।"


অন্যদিকে রয়েছে এইচএসসি, জেএসসি ও সমাপনী পরীক্ষা শুরু কবে হবে তা নিয়ে ভাবনা। শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয় করোনা পরিস্থিতি যদি আগস্টের মধ্যে স্বাভাবিক হয় তাহলে সেপ্টেম্বর থেকে ডিসেম্বরের মধ্যেই ঘোষণা করা হবে সকল বোর্ড পরীক্ষার তারিখ ও সময়সূচি।‌


এদিকে বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নেওয়া হচ্ছে মাসিক বেতন। অনেক প্রতিষ্ঠান আর্থিক ক্ষতির কারণে বন্ধ হয়ে গেছে। অনেক শিক্ষক_ শিক্ষিকা হারিয়েছেন চাকরি। কিছু কিছু কিন্ডার গার্ডেন স্কুল পুরোপুরি বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছেন কর্তৃপক্ষ। 


সকল পরিস্থিতি বিবেচনা করে শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছেন, যদি কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারি অনুমতি ব্যতীত খোলা রাখা হয় তাহলে জরিমানা করা হবে এবং শাস্তি পেতে হবে। তাছাড়া কবে খুলবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তা নিয়ে মনগড়া কথা গুজব ছড়ালে যথাযথ শাস্তি পেতে হবে।

এই বিভাগের আরও